সোমবার ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিডিপ্যাপ নিয়ে উল্টোপথে গর্ভনর হোকুলঃপ্রতিবাদে হোম কেয়ার ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪   |   প্রিন্ট   |   131 বার পঠিত   |   পড়ুন মিনিটে

সিডিপ্যাপ নিয়ে উল্টোপথে গর্ভনর হোকুলঃপ্রতিবাদে হোম কেয়ার ব্যবসায়ীরা

 

সিডিপ্যাপ নিয়ে গর্ভনর ক্যাথি হোকুল উল্টোপথে হাঁটছেন। ফুুসে উঠছেন নিউইয়র্কের ৭ শত হোম কেয়ার ব্যবসায়ীরা। হোম কেয়ার সেবা নিয়ে নিউইয়র্ক স্টেট গর্ভনর ক্যাথি হোকুলের কথিত পদক্ষেপে ২ লক্ষাধিক ডিসএবলড ও বয়স্ক নিউইয়র্কারের সেবা প্রাপ্তি হুমকির মুখে পড়বে। প্রায় লক্ষাধিক এই সেবাদানকারি চাকুরি হারাবেন। গর্ভনর ক্যাথি হোকুল ও স্টেট এসেমব্লি স্পীকার কার্ল হেস্টি সম্প্রতি ৮ বিলিয়ন ডলারের মেডিকেইড হোম কেয়ার কর্মসূচির র্দুনীতি বন্ধের নামে জনস্বার্থ বিরোধী প্রস্তাব এনেছেন। মেডিকেইড সেবা খাতকে গণমুখি করার পরিবর্তে তা তুলে দিতে চাচ্ছেন একটি প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের হাতে। বর্তমানে তা পরিচালিত হয় স্টেটের নিয়ন্ত্রণাধীন ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ এর মাধ্যমে। নিউইয়র্ক পোষ্টে এ ধরনের একটি খবর প্রকাশিত হয়েছে গত ১১ এপ্রিল। এতে বলা হয়, জর্জিয়ার আটলান্টা বেজড পিপিএল ইনক নামের ফাইন্যানসিয়াল ম্যানেজমেন্ট সার্ভিস কোম্পানী এককভাবে মেডিকেইডকে বিল করে সিডিপ্যাপ সেবা প্রতিষ্ঠানগুলোকে পে করবে। নিউইয়র্কের ৭ শত হোম কেয়ার প্রতিষ্ঠানকে নিয়ন্ত্রন করার চেষ্টা করবে। এ প্রসঙ্গে গোল্ডেন এজ হোম কেয়ারের প্রেসিডেন্ট শাহ নেওয়াজ প্রতিবেদককে বলেন, স্টেট সেবা মানুষের কাছে না এনে একক প্রতিষ্ঠানের হাতে তুলে দেবার চিন্তা করছে। এতে মানুষের কল্যান হবে না। আরও হয়রানী বাড়বে। পেনসিলভানিয়া স্টেট এই ধরনের উদ্যোগে নিয়েছিল পিপিএল কোম্পানীর মাধ্যমে। তারা সেখানে ব্যর্থ হয়েছে। ছোট একটি সেটেটেই তারা পারে নি। নিউইয়র্কের মতো এতও বড় স্টেটে তারা সাহস দেখায় কেমনে। অতীতে স্টেট লিড এফআই এর নামে হোম কেয়ার ব্যবসার উপর খবরদারি করতে চেয়েছিল । সফল হয়নি। এবারও হবে না। বুধবার আমরা আলবেনিতে গিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে এসেছি। কয়েকজন আইনপ্রণেতা আমাদের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনেছেন। এল্ডার হোম কেয়ারের প্রেসিডেন্ট গিয়াস আহমেদ প্রতিবেদককে বলেন, ডিসএবলড ও বয়স্ক লোকদের স্বার্থ বিরোধী গর্ভনরের কোন উদ্যোগকে আমরা মানি না। একটি কোম্পানীর হাতে সিডিপ্যাপ ব্যবস্থাপনা ছেড়ে দিলে লক্ষাধিক মানুষ বেকার হয়ে পড়বে। আমরা যেকোন মূল্যে তা প্রতিহত করবো।

কনজ্যুমার ডাইরেক্টটেড পারসোনাল এসিসট্যান্স প্রোগ্রাম (সিডিপ্যাপ) এর সাথে কাজ করেন বিভিন্ন হোমকেয়ার প্রতিষ্ঠান। আপনজনকে সেবা প্রদান করেও অনেকে আর্থিকভাবে লাভবান হন।

আশা হোম কেয়ার ও আশা এডাল্ট কেয়ারের চেয়ারম্যান আকাশ রহমান। তিনিও ১২ জনের একটি দল নিয়ে আলবেনিতে গিয়ে ছিলেন প্রতিবাদ জানাতে। তিনি প্রতিবেদককে বলেন, সিডিপ্যাপ সেবা ব্যবস্থাপনার ভার এককভাবে কোন একটি কোম্পানীকে দেয়া হচ্ছে বলে আমরা শুনেছি। তবে এখনও কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। আলবেনির আইন সভায় তা নিয়ে আলোচনাও হয়নি। শুধু গর্ভনর ও স্টেট এসেমব্লি স্পীকার পর্যায়ে রয়েছে। আমরা আগ থেকেই উদ্বেগের কথা জানিয়ে আসলাম। আমি নিজেও স্টেট এসেমব্লিওম্যান জেনিফার রাজকুমার ও এসেমব্লিম্যান স্টিভেন রাগা’র সাথে কথা বলেছি। তারা আমাদের উদ্বেগের কথা শুনেছেন।

গত বুধবার সিডিপ্যাপ হোমকেয়ার ব্যবসা প্রতিষ্টানের পক্ষ থেকে প্রায় ২ শতাধিক প্রতিনিধি আলবেনিতে গিয়ে প্রতিবাদ সভা করেন। সভায় যোগদানকারি বাংলাদেশি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে ডিএইচ কেয়ার, সারা হোম কেয়ার ও মার্কস হোম কেয়ার।

Facebook Comments Box

Posted ৮:২৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

nykagoj.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
সম্পাদক
আফরোজা ইসলাম
কন্ট্রিবিঊটিং এডিটর
মনোয়ারুল ইসলাম
Contact

+1 845-392-8419

E-mail: nykagoj@gmail.com