বৃহস্পতিবার ২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে যে শর্ত দিল সৌদি আরব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   |   বুধবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   |   প্রিন্ট   |   18 বার পঠিত

ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে যে শর্ত দিল সৌদি আরব

সৌদি আরবের সঙ্গে ইসরায়েলের সম্পর্কের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহের জবাবে পাল্টা শর্ত দিয়েছে রিয়াদ। দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিকের আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র জন কারবির আগ্রহের কথা জানানোর পর সৌদি আরব জানিয়েছে- স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি না দেওয়া পর্যন্ত ইসরায়েলের সঙ্গে কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক রাখবে না তারা। বুধবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। খবর- রয়টার্স।

এর আগে সোমবার সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের বৈঠক হয়। ওই বৈঠকের পরদিন দোহায় সংবাদ সম্মেলনে ব্লিংকেন সৌদি আরব-ইসরায়েলের মধ্যে সম্পর্ক এগিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহের কথা জানান। ব্লিংকেন বলেন, সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিষয়টি নিয়ে সৌদি যুবরাজ আগ্রহের কথা বলেছেন। তবে এজন্য গাজায় সংঘাতের নিরসন এবং ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় সুনির্দিষ্ট সময়সীমার একটি প্রক্রিয়া নির্ধারণের কথা জানিয়েছেন।

গত বছরের জুনে সৌদি আরব সফর করেন অ্যান্টনি ব্লিংকেন। সম্পর্ক জোরদারে তেল সমৃদ্ধ দেশটিতে তিন দিনের সফরে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে ব্লিংকেনের খোলামেলা, আন্তরিক আলোচনা হয়। আলোচনার বড় অংশজুড়ে ছিল সৌদি আরব ও ইসরায়েলের মধ্যে স্বাভাবিক সম্পর্ক তৈরি। তবে কর্মকর্তারা জানান, খুব সহজে বা তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে অগ্রগতির সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, তাঁরা ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলেছেন।

এ বিষয়ে আলোচনা অব্যাহত রাখার বিষয়ে ২ পক্ষ একমত হয়েছে। সৌদি আরব নিজেদের বেসামরিক পারমাণবিক প্রকল্প চালু, এর বাস্তবায়নে মার্কিন সহযোগিতা ও এ-সংক্রান্ত নিরাপত্তা নিশ্চয়তার বিনিময়ে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে রাজি হয়েছে। বৈঠকে সুদান ও ইয়েমেনে সংঘাত নিরসনের প্রচেষ্টার ওপরও আলোকপাত করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন মার্কিন কর্মকর্তা জানান, দুই দেশের স্বার্থ জড়িত আছে এ রকম কিছু সম্ভাব্য যৌথ উদ্যোগ ও মতভেদের বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয় তাদের মধ্যে।

ওয়াশিংটন মনে করে, কয়েক দফা আলোচনার মাধ্যমে ইসরায়েলের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক স্বাভাবিক হবে এবং এ অঞ্চলে ক্রমবর্ধমান রুশ ও চীনা আধিপত্য কমবে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

nykagoj.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯  
সম্পাদক
আফরোজা ইসলাম
কন্ট্রিবিঊটিং এডিটর
মনোয়ারুল ইসলাম
Contact

+1 845-392-8419

E-mail: nykagoj@gmail.com