সোমবার ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিয়ানমারে তীব্র লড়াই, নাগরিকদের ফিরিয়ে নিচ্ছে থাইল্যান্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   |   রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   81 বার পঠিত   |   পড়ুন মিনিটে

মিয়ানমারে তীব্র লড়াই, নাগরিকদের ফিরিয়ে নিচ্ছে থাইল্যান্ড

মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে জাতিগত সংখ্যালঘু বিভিন্ন গোষ্ঠী ও বিদ্রোহীদের সাথে জান্তা সৈন্যদের লড়াই আরও তীব্র আকার ধারণ করেছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চলমান এই লড়াইয়ে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী কিছু সামরিক চৌকি ও স্থাপনার নিয়ন্ত্রণ বিদ্রোহীদের কাছে হারিয়েছে। এছাড়া দেশটির হাজার হাজার বাসিন্দা প্রতিবেশি ভারতে পালিয়ে গেছেন। এমনকি বিদ্রোহীদের সঙ্গে লড়াইয়ে টিকতে না পেরে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীরও ৬০ জনের বেশি সদস্য ভারতের মিজোরামে পালিয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে মিয়ানমারে জান্তা ও জাতিগত বিদ্রোহীদের লড়াইয়ের মাঝে আটকে পড়া নাগরিকদের ফিরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে থাইল্যান্ড।

রোববার থাইল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে সামরিক বাহিনী ও বিদ্রোহীদের লড়াইয়ে আটকে পড়া দুই শতাধিক থাই নাগরিককে দেশের ফেরানো হবে। এই নাগরিকদের মিয়ানমার থেকে প্রথমে চীন, পরে সেখান থেকে থাইল্যান্ডে ফিরিয়ে আনা হবে।

গত কয়েক দশক ধরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের জাতিগত সংখ্যালঘু ও অন্যান্য বিদ্রোহীগোষ্ঠীগুলোর সাথে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর লড়াই চলছে। তবে ২০২১ সালের সামরিক অভ্যুত্থান দেশটির জান্তাবিরোধী গোষ্ঠীগুলোর মাঝে নজিরবিহীন সমন্বয় তৈরি করেছে। যে কারণে দেশটির বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর সাথে লড়াইয়ের ক্ষেত্রে সামরিক বাহিনী সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছে। গত মাসের শেষের দিকে দেশটির জাতিগত সংখ্যালঘু তিনটি গোষ্ঠীর সদস্যরা জান্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে একযোগে সমন্বিত হামলা শুরু করে।

সম্প্রতি দেশটির কয়েকটি এলাকায় বিদ্রোহীদের তুমুল হামলার কবলে পড়েছে সামরিক বাহিনী। বিদ্রোহীরা হামলা চালিয়ে সামরিক বাহিনীর বেশ কিছু নিরাপত্তা চৌকি ও স্থাপনার দখল নিয়েছে। বিদ্রোহীদের হামলা বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারি সব কর্মী ও সামরিক অভিজ্ঞতা রয়েছে এমন ব্যক্তিদের জরুরি প্রয়োজনে সেনাবাহিনীতে কাজ করার জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার আদেশ দিয়েছে মিয়ানমারের সামরিক জান্তা।

সেনাবাহিনীর বিরোধিতায় দেশটির গণতন্ত্রপন্থী রাজনীতিবিদদের গঠিত ছায়া সরকার কিছু বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সাথে জোট গড়ে ‘‘রোড টু নেপিদো’’ অভিযান শুরু করেছে। রাজধানীর নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার লক্ষ্যে তারা এই অভিযান শুরু করেছেন বলে জানিয়েছেন।

থাই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের সহায়তায় ২৬৬ থাই নাগরিকসহ কিছুসংখ্যক ফিলিপিনো এবং সিঙ্গাপুরের নাগরিককে উত্তর শান রাজ্যের লাউকাইং থেকে মিয়ানমার-চীন সীমান্তে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। বিদেশিদের এই দলটিকে চীনে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে। তারপর তারা চীনের কুনমিং শহর থেকে দুটি চার্টার্ড ফ্লাইটে ব্যাংককে যাবেন; যেখানে তাদের বিরুদ্ধে মানবপাচার এবং কোনও অপরাধমূলক অভিযোগের রেকর্ড আছে কি না তা যাচাই-বাছাই করা হবে।

তবে মিয়ানমার থেকে নিজ নাগরিকদের প্রত্যাবাসনের কাজে নিয়োজিত ফ্লাইটের সময় নির্দিষ্ট করে জানায়নি থাইল্যান্ড। তবে দলটি রোববার চীনা সীমান্তে পৌঁছাবেন বলে জানানো হয়েছে।

Facebook Comments Box

Posted ১০:৩৫ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২৩

nykagoj.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
সম্পাদক
আফরোজা ইসলাম
কন্ট্রিবিঊটিং এডিটর
মনোয়ারুল ইসলাম
Contact

+1 845-392-8419

E-mail: nykagoj@gmail.com